1. admin@metrobanglatv.com : metrobanglatv.com :
শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বগুড়া শাজাহানপুর যাত্রীবাহী বাসের চাপায় সিএনজি অটোরিকশা চালক সহ ৪ জন নিহত- চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় চলাচল করছে তিন চাকার অবৈধ যানবাহন,প্রশাসন নিরব ভূমিকায়। ডিজিটাল আজিজনগরের রূপকার মোঃ জসিম উদ্দিন কোম্পানী। নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের তেল চুরির দায়ে চালকসহ আটক-০৩ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মিছিলে ককটেল হামলা আহত দুই জন- সেনবাগ উপজেলার কানকিরহাটের মেয়ে শিক্ষার উপর গোল্ড মেডেল ও সনদ পেলেন- কোভিড-১৯ টিকাগ্রহণ ও উদ্বুদ্ধ করণ সংক্রান্তে জনসচেতনামূলক র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত- বালাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ- মানিকগঞ্জে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও মশক নিধন অভিযান শুরু। নাটোরে গাঁজা ও চোলাই মদ সহ ২২ মাদকসেবি গ্রেফতার-

মোঃ ফরিদুল আলম বাবলু বিশেষ প্রতিনিধি চট্টগ্রাম জেলাঃ-
  • প্রকাশিত: বুধবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৯৬ বার পড়া হয়েছে

পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়া ইট প্রস্তুত ও ভাটা নিয়ন্ত্রণ আইন অমান্য করে ভাটা পরিচালনা করার অপরাধে বান্দরবানের লামা উপজেলা ফাইতং ইউনিয়নে চারটি ইটভাটা গুড়িয়ে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
এসময় ২টি ইটভাটার মালিককে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা করে ৫ লক্ষ টাকা, অপর ২টি থেকে ২ লক্ষ টাকা করে ৪ লক্ষ টাকা সহ মোট ৯ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শ্রীরুপ মজুমদার।

(বুধবার ২৭ জানুয়ারী ২১ইং) বেলা ১১টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত লামা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট মাহফুজা জেরিন ও বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক শ্রীরুপ মজুমদার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন, পরিবেশ অধিদপ্তর বান্দরবান কার্যালয়ের পরিদর্শক আব্দুস সালাম। অভিযানে সাথে থেকে সহায়তা করেন, লামা থানা পুলিশ, র‌্যাব-১৫ ও লামা ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

গুড়িয়ে ফেলা ভাটাগুলো হলো- চকরিয়া উপজেলার কৈয়ারবিল এলাকার মোক্তার মিয়া সহ যৌথ পরিচালিত উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের পাদুরছড়া এলাকার ফাইভজিএম ব্রিকস, চকরিয়া উপজেলার ছিকলঘাট এলাকার ফরিদ মিয়া পরিচালিত ফাইতং ফাদুরছড়া এলাকার এসডব্লিউবি ব্রিকস। এসময় ইটভাটা দুইটির টিনের চিমনি ভেঙ্গে ফেলে এবং স্কেভেটর দিয়ে ভাটার কাঁচা-পাঁকা তৈরি ইট গুড়িয়ে দেয়া হয়। তাছাড়া ফায়ার সার্ভিসের পানির গাড়ি দিয়ে পানি দিয়ে ইটভাটা গুলো নষ্ট করে দেয়া হয়েছে।

পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শ্রীরুপ মজুমদার বলেন, আদালতের নির্দেশে আমরা অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়া যতগুলো ইটভাটা রয়েছে প্রত্যেক ভাটায় অভিযান পরিচালনা করা হবে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট মাহফুজা জেরিন বলেন, ভাটায় চিমনি ব্যবহার করে যারা ভাটার কার্যক্রম চালিয়ে আসছে তাদের বিরুদ্ধে এই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। যে সব ভাটায় স্থায়ী চিমনি ব্যবহার না করে হাওয়ার মাধ্যমে ইট তৈরির কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে তাদের জরিমানা করা হচ্ছে। ২০১২ সালের পর থেকে পরিবেশ দূষণকারী সনাতন পদ্ধতির ফিক্সড চিমনি দিয়ে ইটভাটা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায় : মাল্টিকেয়ার

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত